করোনা কালে চাকরি না থাকার দরুন দিতে পারেননি ইএম‌আই। গ্রাহককে মারধরের অভিযোগ ব্যাঙ্ককর্মীদের বিরুদ্ধে। ভাইরাল ভিডিও।

করোনা কালে চাকরি না থাকার দরুন দিতে পারেননি ইএম‌আই। গ্রাহককে মারধরের অভিযোগ ব্যাঙ্ককর্মীদের বিরুদ্ধে। ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনা আবহে কার্যত লকডাউনের মতোই পরিস্থিতি রাজ্যে। জারি রয়েছে বিধিনিষেধ। বন্ধ লোকাল ট্রেন। কর্মস্থলে যেতে পারছেন না বহু মানুষ। এছাড়াও কাজ হারিয়ে ব্যাপক সঙ্কটে পড়েছেন অনেকেই। এই পরিস্থিতিতে আবার অনেকের মাথার উপর রয়েছে লোনের বোঝা। আবার ভয়াবহ এই সময়ে ব্যাঙ্ক ছাড় দেয়নি ইএম‌আই দেওয়াতেও। এই লোনের কিস্তি না দিতে পারার দরুণ অমানবিক ব্যবহার করা হল এক যুবকের সাথে।

ইএমআই দিতে না পারার জন্য মারধর করা হয়েছে এক যুবককে। এই ঘটনাটি ঘটেছে বরানগর শাখার একটি বেসরকারি ব্যাঙ্কের। ব্যাঙ্ককর্মী এবং সিকিউরিটি গার্ডদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যে তারা বিপুল সাহা নামক ওই যুবককে মারধর করেছে। এই মারধরের ভিডিও ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।জানা গিয়েছে নিগৃহীত যুবকের নাম বিপুল সাহা। তিনি একটি এসি সার্ভিসিং কোম্পানির সাথে যুক্ত। তাঁর বাইকের ২৮০০ টাকা ইএম‌আই যায় প্রতি মাসে। কিন্তু করোনা আবহে কাজ না থাকায় তিনি এপ্রিলের ইএম‌আই দিতে পারেননি।

আরও পড়ুন-নিজের রিক্সা ভেঙে ভ্যান তৈরি করেই বিনামূল্যে করোনা রোগীদের হাসপাতালে পৌঁছে দিচ্ছেন প্রৌঢ় রবিউল।

সেই মতো তিনি একটি আবেদনপত্র নিয়ে গতকাল ওই ব্রাঞ্চে দেখা করতে গিয়েছিলেন ম্যানেজারের সাথে। কিন্তু এর পরেই ওই যুবককে অপদস্থ করা হয়। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে ব্যাঙ্কের সিকিউরিটি গার্ড এবং ব্যাঙ্কের কর্মী তাঁকে মারধর করে বাইরে বের করে দিচ্ছে। এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেছেন বিপুল সাহা। এরপর তিনি বরানগর থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে বরানগর থানা তার এই অভিযোগ নেয়নি বলে জানিয়েছেন বিপুল বাবু । এছাড়াও মধ্যমগ্রাম থানাও এই বিষয়ে কোনো হস্তক্ষেপ করেনি। ভিডিওটি দেখে রীতিমতো ছি ছি করছেন আপামর মানুষজন। সকলেই ওই ব্যাঙ্ককর্মীদের শাস্তির দাবীতে সরব হয়েছেন।