করোনা আবহে সময় কমানো হলো উচ্চমাধ্যমিকের‌ও

করোনা আবহে সময় কমানো হলো উচ্চমাধ্যমিকের‌ও

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনা আবহে মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক হবে কি না সেই ব্যাপারে যথেষ্ট ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছিলো। রাজ্য ঘোষণা করেছে আগামী আগস্টেই হবে মাধ্যমিক। মধ্যশিক্ষা পর্ষদ চিন্তাভাবনা করছে সময় বাঁচানোর জন্য আগামী মাধ্যমিকের খাতা দেখায় কোন রকম টেকনিক্যাল পরিবর্তন করা যায় কিনা। এবারে মাধ্যমিক দিতে চলেছে রাজ্যের প্রায় ১২ লক্ষ পরীক্ষার্থী। তাই যদি আগের মতোই খাতা দেখা হয় তাহলে সেন্টার থেকে ওই খাতাগুলি নিয়ে সংশ্লিষ্ট হেড এক্সামিনারের কাছে পাঠাতে হবে। তিনি এবার ওই খাতা পাঠাবেন এক্সামিনার দের কাছে।

এক্সামিনাররা মাধ্যমিকের খাতা দেখে নিয়ে সেগুলি আবার হেড এক্সামিনারের কাছে পাঠাবেন। তারপর মধ্যশিক্ষা পর্ষদের কাছে ওই খাতাগুলি পৌঁছাবে। এই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে যথেষ্ট বেশি সময় লাগবে এবং এই অতিমারি পরিস্থিতিতে এই প্রক্রিয়াটি যথেষ্ট জটিল। তাই মধ্যশিক্ষা পর্ষদ চিন্তাভাবনা করছেন এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে পড়ুয়াদের মূল্যায়ন ব্যবস্থা আরো কম সময়ের মধ্যে সরল ভাবে কিভাবে করা যায়।

আরও পড়ুন-মাধ্যমিকের খাতায় কি হতে চলেছে স্পট অ্যাসেসমেন্ট ? চলছে সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রস্তুতি।

পর্ষদ চিন্তাভাবনা করছে এক মাসের মধ্যেই যদি এই পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা যায় তাহলে ব্লক ভিত্তিক করা যেতে পারে। অর্থাৎ একটি ব্লক এর মধ্যে যে স্কুল গুলি রয়েছে সেই সমস্ত পরীক্ষার্থীদের খাতা ওই ব্লকের অন্তর্গত কোন একটি সেন্টারে রাখা থাকবে। এক্সামিনাররা এসে ওই সেন্টারে খাতা দেখে নম্বর দিয়ে দেবেন। সেই খাতা তারপর চলে যাবে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের কাছে। এর ফলে বিষয়টি আরো সরল হবে এবং সময় বাঁচবে অনেকটাই।

আরও পড়ুন-ইয়াসের ত্রাণ চুরির গুরুতর অভিযোগ। ইঙ্গিত শুভেন্দুর দিকে।

এছাড়াও মাধ্যমিকের সময় কমিয়ে দেওয়া হয়েছে দেড় ঘন্টায়।এবার উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ক্ষেত্রেও আনা হল পরিবর্তন। তিন ঘন্টার উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা হবে দেড় ঘন্টায়। এমনটাই ঘোষণা করেছে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। এর ফলে পড়ুয়াদের পরীক্ষার বিষয়টি সুরক্ষিত হ‌ওয়ার পাশাপাশি অনেকটাই কম সময়ের মধ্যেও সম্পন্ন হবে।