নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“বিজেপি কাউন্সিলরের বাড়ির সামনে এটা দিয়ে আসুন”- জলমগ্ন এলাকায় গিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য দিলীপ ঘোষের

নিজস্ব প্রতিবেদন: আবার বিতর্কের শিরোনামে দিলীপ ঘোষ । গত শনিবার ঘাটাল থেকে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে আসার পর গতকাল রবিবার খড়গপুর গ্রামীণ এলাকায় বন্যা পরিস্থিতি দেখতে গিয়েছিলেন দিলীপ ঘোষ। খড়্গপুরে অসুস্থ বিজেপি কর্মীকে দেখতে গিয়ে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পড়লেন দিলীপ ঘোষ। এরপরেই তিনি মেজাজ হারিয়ে একটি বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেছেন ।

জানা গিয়েছে ওই এলাকায় মানুষজন বহুদিন ধরে বৃষ্টির জমা জল যন্ত্রনায় ভুগছেন । গতকাল রবিবার যখন ওই এলাকায় পৌঁছান দিলীপ ঘোষ তখন স্থানীয় বিজেপি কাউন্সিলরের নামে দিলীপ ঘোষের কাছে রীতিমতো অভিযোগ জানাতে থাকেন এলাকাবাসী। তখন‌ই কার্যত মেজাজ হারান দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেছেন,”এতদিন সবাই কি ঘুমাচ্ছিলেন ?

আরও পড়ুন-ভবানীপুর উপ নির্বাচনের জন্য নতুন স্লোগান তুলে প্রচার শুরু করল তৃণমূল।

সাংসদ কোটার টাকা আমি আগেই পৌরসভার হাতে তুলে দিয়েছি। আমার দেওয়া টাকায় এখনো পর্যন্ত কোন কাজ শুরু করেনি পৌরসভা। আপনারা সকলে পৌরসভার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখান। দিলীপ ঘোষ কি সবকিছু করে দিতে পারবে? আপনারা রাস্তায় বিক্ষোভ দেখান আমি আপনাদের সাথে আছি।

এদিকে দিলীপ ঘোষ টাকাও দেবে আবার তাকে অভিযোগও শুনতে হবে ?”এর পরেই বিজেপি কাউন্সিলরদের উদ্দেশ্যে এলাকাবাসীকে দিলীপ ঘোষ বলেন, “ওর বাড়ির সামনে মলত্যাগ করে দিয়ে আসুন। যাতে ও বাড়ি থেকে বের হতে না পারে। ল্যাম্পপোস্টে বেঁধে রাখুন।”

আরও পড়ুন-“ত্রিপুরা কি আলাদা দেশ?”- বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়

দিলীপ ঘোষের মুখ থেকে এই চলতি ভাষায় মলত্যাগ করে দেওয়ার কথা শুনে রীতিমত অপ্রস্তুতে পড়ে যান উপস্থিত বেশ কয়েকজন। কিন্তু নির্বিকার দিলীপ বাবু তারপরেই এলাকা ছেড়ে বেরিয়ে যান। তাঁর এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে যথেষ্ট কটাক্ষ শুরু করেছে তৃণমূল। কিন্তু রাজ্যের এক বিজেপি নেতা বলেছেন,”দিলীপ ঘোষ নিজেই মাটির মানুষ।

তিনি মাটির সাথে লেগে থাকেন তাই তাঁর মুখ দিয়ে চলতি কথা বের হওয়াটা স্বাভাবিক বিষয়।”

Related Articles

Back to top button