“ভ্যাকসিন নিয়ে বিভ্রান্তিকর প্রচার চালাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী।”- বললেন বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য

“ভ্যাকসিন নিয়ে বিভ্রান্তিকর প্রচার চালাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী।”- বললেন বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনার দ্বিতীয় পর্যায়ে ভয়ঙ্কর তান্ডব চালাচ্ছে করোনা ভাইরাস। শেষ ২৪ ঘন্টায় বাংলার মাটিতে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় তিন লক্ষ ছুঁতে বসেছে। পশ্চিমবঙ্গের বুকেও ভয়াবহ সন্ত্রাস চালাচ্ছে করোনা ভাইরাস। ভোটের এই আবহে বড় বড় জনসভা এবং রোড শো গুলি থেকে মারাত্মক হারে ছড়িয়ে পড়তে পারে করোনার ভাইরাস এমনটাই আশঙ্কা করছে চিকিৎসক মহল।

তাই বড় বড় রোড শো এবং জনসভা থেকে পিছু হটছে তৃণমূল এবং বিজেপি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারবার প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করছেন পর্যাপ্ত পরিমাণে টীকা এবং অক্সিজেন পাঠাতে। সারা বাংলা মৃত্যুভয়ে তটস্থ হয়ে রয়েছে।এই আবহে বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য মুখ্যমন্ত্রীর প্রতি তীব্র আক্রমণ শানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, “ভারত বর্ষ হলো পৃথিবীর মধ্যে একমাত্র দেশ যেখানে ১৩ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। সারা পৃথিবীর মানুষ প্রধানমন্ত্রীর দিকে বিশ্ব তাকিয়ে রয়েছে, যে ১৩৫ কোটি জনসংখ্যার এই দেশে প্রধানমন্ত্রী যেভাবে কোভিডের মোকাবিলা করছেন, কোভিডের পর ভারতীয় অর্থনীতিতে তিনি যেভাবে প্রাণের সঞ্চার ঘটিয়েছেন, তা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। ‌

আরও পড়ুন-“এটাই হয়তো শেষ গুড মর্নিং”- ফেসবুক পোস্ট এর পরেই মৃত্যু করোনা আক্রান্ত চিকিৎসকের

আজ সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তিকর প্রচার চলছে। ৫ কোটি ভ্যাকসিন বাইরে এখনো পাঠানো হয়নি এটা প্রস্তাবের মধ্যে রয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মানুষের কাছে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। কিন্তু কেউ প্রমাণ করতে পারবেনা যে পশ্চিমবঙ্গকে বঞ্চিত করা হয়েছে। বিজেপি শাসিত রাজ্য থেকে পশ্চিমবঙ্গ সবথেকে বেশি ভ্যাকসিন পেয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের বাইরে অন্য কোন রাজ্য থেকে এই অভিযোগ আসেনি। যখন তৃণমূল কংগ্রেসের জনসভায় লোক হচ্ছে না, যখন তৃণমূল কর্মীরা জেনে গিয়েছে তাদের বিদায় আসন্ন, তখন মুখ্যমন্ত্রী পশ্চিমবঙ্গের জনতার মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করছেন , উৎকন্ঠা, হতাশা তৈরি করছেন।”