নিউজপলিটিক্স

নন্দীগ্রামে আহত হলেন মুখ্যমন্ত্রী; রাজনৈতিক চাপানউতোর তুঙ্গে!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আজ‌ই হলদিয়ার পৌঁছে মনোনয়নপত্র পেশ করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিপরীতে বিজেপি প্রার্থী হিসাবে দাঁড়িয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। নন্দীগ্রাম কে ভোটের অন্যতম হাতিয়ার হিসেবে ধরছে শাসক দল এবং বিজেপি দুপক্ষই । এহেন নন্দীগ্রামের মাটিতেই ছন্দপতন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। নন্দীগ্রামে পড়ে গিয়ে পায়ে গুরুতর চোট পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে যে, হলদিয়ায় মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রামে থাকবেন বলে ঠিক করেছিলেন। সেখানে প্রায় সাতটি মন্দিরে তিনি পুজো দেন, এলাকার মানুষের সঙ্গে কথা বলেন । কিন্তু হঠাৎই তিনি ভিড়ের মাঝে পড়ে গিয়ে গুরুতর চোট পান তার পায়ে। এমনকি তাঁর পা ফুলে যায়। সাথে সাথে বরফ এনে তার পায়ে লাগানো হয়। এছাড়াও তিনি হাতেও কিছুটা চোট পেয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন-বলিউড নায়িকা কঙ্গনা রানাওয়াতের টুইট- “পাকিস্তানেও সরকার গড়তে চলেছেন মোদী।

এরপর তাঁর বুকে ব্যাথা অনুভূত হলে তাকে সাথে সাথে কলকাতা নিয়ে আসা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। আপাতত গ্রিন করিডর বানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে কলকাতায় আনা হচ্ছে। এই প্রসঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন যে, তাঁকে ইচ্ছাকৃতভাবে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

তবে এই বিষয়টিকে কটাক্ষ করে বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং বলেছেন, “এত সিকিউরিটি থাকা সত্ত্বেও কিভাবে একজন মুখ্যমন্ত্রীকে কেউ ঠেলে ফেলে দিতে পারে?” আবার এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ। সকলেই প্রার্থনা করছেন যে মুখ্যমন্ত্রী তাড়াতাড়ি সুস্থ্য হয়ে আবার নির্বাচনী কর্মসূচিতে ফিরে আসুন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button