“গরুর গাড়ির আবার হেডলাইট”- অভিষেকের পদোন্নতিতে কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা তথাগত রায়। প্রতিক্রিয়া তৃণমূলের।

“গরুর গাড়ির আবার হেডলাইট”- অভিষেকের পদোন্নতিতে কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা তথাগত রায়। প্রতিক্রিয়া তৃণমূলের।

নিজস্ব প্রতিবেদন: গত শনিবার তৃণমূল ভবনে সাংগঠনিক বৈঠক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। জানা গিয়েছে ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জেলা সভাপতি, সাংসদ, পুর প্রশাসক এবং বিধায়করা । করোনা পরিস্থিতির জন্য দূরবর্তী জেলার প্রতিনিধিদের ভার্চুয়াল মাধ্যমে এই বৈঠকে অংশগ্রহণ করতে বলা হয়েছিলো। এই বৈঠকে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তার মধ্যে অন্যতম হল যুব তৃণমূলের সভাপতি পদ থেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইস্তফা। জানা গিয়েছে এবার তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পদে আসীন হয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর জায়গায় যুব তৃণমূলের সভাপতি পদে আসীন হতে চলেছেন তৃণমূলের আসানসোলের তারকা প্রার্থী সায়নী ঘোষ। এছাড়াও আরো বেশ কিছু রদবদল হয়েছে ।

আরও পড়ুন-“বেসুরো ন‌ই আমি।”- চাপের মুখে সাফাই দিলেন সৌমিত্র খাঁ।

এদিকে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সম্পাদক পদে অভিষেকের অভিষিক্ত হ‌ওয়ার পরেই তৃণমূলের উদ্দেশ্যে কটাক্ষের তীর ছুঁড়ে দিয়েছেন বিজেপি নেতা তথাগত রায়। তিনি একটি পেজের লিংক তুলে গতকাল রবিবার লিখেছেন, “গতকাল সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস দলের বেশ কয়েকটি সর্বভারতীয় পদের ঘোষণা করা হয়েছে। বহুদিন আগে একটা নাটক দেখেছিলাম সেই নাটকের কথা মনে আসছে। গরুর গাড়ির হেডলাইট।

আরও পড়ুন-বিজেপির ভাবমূর্তি বাঁচাতে জে পি নাড্ডার বাড়িতে হাইভোল্টেজ বৈঠক বিজেপির।

 

“তথাগত রায়ের এই টুইটের পরিপ্রেক্ষিতে তাঁকে আক্রমণ করেছেন তৃণমূল নেতা কুনাল ঘোষ। কুনাল বাবু বলেছেন, “পুঁইশাকের আবার ক্যাশ মেমো হয়?” তৃণমূলের বর্তমান মুখপাত্র তাপস রায় বলেছেন, “তথাগত রায় নিজের দলেই গুরুত্ব পান না। তাই তাঁর কথায় কান দেওয়ার দরকার নেই।“এই বৈঠকে তৃণমূলের অন্দরে বেশ কিছু রদবদল করা হয়েছে।