“বিজেপি মনে করছে রাজনীতি করা মানে গুলি চালানোর অধিকার”- রানাঘাটের জনসভা থেকে বিজেপিকে বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী

“বিজেপি মনে করছে রাজনীতি করা মানে গুলি চালানোর অধিকার”- রানাঘাটের জনসভা থেকে বিজেপিকে বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতলকুচি ঘটনায় সারা পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। রাজ্য রাজনীতি সরগরম এই কান্ড ঘিরে। কোচবিহারে শীতলকুচির বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে চার তৃণমূল সমর্থকের মৃত্যুর ঘটনায় অত্যন্ত বিক্ষোভ দেখিয়েছে তৃণমূল। এদিকে বিজেপি নেতা রাহুল সিন্‌হা এই ঘটনাকে সমর্থন জানিয়েছেন।

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, “বাড়াবাড়ি করলে জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে।”এই ঘটনাকে নিয়ে বিজেপি তৃণমূল দ্বৈরথ আরো গাঢ় হচ্ছে রাজ্যের বুকে । গতকাল রানাঘাট এর জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী তীব্র আক্রমণ করেছেন বিজেপিকে। ‌ তিনি বলেছেন, “আহত হ‌ওয়ার পর থেকে আমি একটা দিনও ছুটি নিয়ে নি, সমানে আমি জনসভা করে যাচ্ছি। কিন্তু কেন এই কষ্ট করছি জানেন ? আপনারা কি চান বাংলা গুজরাট উত্তরপ্রদেশ হয়ে যাক ?

আরও পড়ুন-শীতলকুচি কান্ড ঘিরে বঙ্গ রাজনীতিতে চড়ছে পারদ

আপনারা কি চান বাংলা গুন্ডাদের হাতে চলে যাক ? আজ বাংলার সম্মান বাঁচানো আমাদের সব থেকে বড় কাজ। মনে রাখতে হবে আমরা ছদ্মবেশী ধর্ম করিনা । দেখেছেন বিজেপির নেতারা কি করে বেড়াচ্ছে? রাজনীতি করা মানে করে খাওয়া নয়। বিজেপি মনে করছে রাজনীতি করা মানে গুলি চালানোর অধিকার। এরা অদ্ভূত। মানুষকে গুলি চালিয়ে দেওয়ার পক্ষে বিজেপি নেতারা কথা বলছেন। এদের নিষিদ্ধ করে দেওয়া উচিৎ। দেখেছেন গ্যাসের দাম কত ? আমি বিনা পয়সায় চাল দেবো, আর আপনারা সেটা ১০০০ টাকার গ্যাস দিয়ে ফোটাবেন?”