রাজস্থানে কংগ্রেস সরকারকে হটিয়ে দেওয়ার ষড়য’ন্ত্র করছে বিজেপি, টুইটারে অভিযোগ তুলে সরব রাহুল

বর্তমানে বাংলায় তথা দেশের মধ্যে স-ন্ত্রা-সে-র ঘোর রাজত্ব চালাচ্ছে করোনা। প্রতিদিনই মৃ-ত্যু হচ্ছে অনেক মানুষের। মৃ-ত্যুভয়কে বিভীষিকাময় সঙ্গী করে নিরন্তর জীবনের সাথে লড়াই করে চলেছে মানুষজন। সকলেই স্বপ্নয়য় চোখে চেয়ে রয়েছে সেই স্বাভাবিক দিনগুলি ফেরার অপেক্ষায়। এইসময় দেশের মানুষের উচিৎ সকলের সাথে সকলের ঐক্যবদ্ধভাবে মিলেমিশে এই কঠিন পরিস্থিতির বি-রু-দ্ধে ল-ড়া-ই করা।

সেইসাথে রাজনৈতিক নেতাদের‌ও উচিৎ এই স-ঙ্ক-টময় পরিস্থিতির মধ্যে সকলের কাজের মধ্যে সমন্বয় সাধন করা। কিন্তু তা আর হচ্ছে কোথায় ? এই আ-শ-ঙ্কা-র ঘনঘটার মধ্যেও অব্যাহত রাজনৈতিক দলগুলির একে অপরকে কাদা ছোঁড়াছুঁড়ির নোংরা খেলা। করোনার আবহে রাজ্যেগুলির মানুষের সুরক্ষার ব্যবস্থা, রাজনৈতিক অভিযোগ সবকিছু নিয়েই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা।বিশেষ করে কেন্দ্র এবং বি-রো-ধী দল কংগ্রেসের বিবাদ চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে।

আরও পড়ুন – অর্থাভাবে রাস্তার ধারে দুর্দান্ত ভঙ্গিমায় লাঠি খেলা দেখিয়ে ভাইরাল 75 বয়সী বৃদ্ধা, ভাইরাল ভিডিও

রাজস্থানের রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্র কিছুতেই বিধানসভার অধিবেশন আয়োজন করতে চাইছেন না। এই অ-ভিযো-গে সরব হয়ে কংগ্রেস বিধায়কগণ রাজ ভবনে ধর্ণায় বসেছিলেন। তারপরেই রাজ্যপাল অধিবেশন আয়োজন করার প্রতিশ্রুতি দিলে ধ-র্ণা বন্ধ করেন কংগ্রেস বিধায়করা। এরপরেই টুইট করে বিজেপি সরকারের প্রতি ক্ষোভ উগড়ে দেন রাহুল গান্ধী।

আরও পড়ুন –কালো পলিথিনে করে প্রমান ধা’মাচা’পা দেওয়ার চেষ্টা, প্রকাশ্যে এলো চা’ঞ্চ’ল্যকর ভিডিও

তিনি টুইটারে লিখেছেন, “দেশে আইন রয়েছে, সংবিধান রয়েছে। রাজস্থানে বিজেপি কংগ্রেস সরকারকে ফেলে দেওয়ার ষড়-যন্ত্র করছে , এটা স্পষ্টত‌ই বোঝা যাচ্ছে। রাজস্থানের আট কোটি অধিবাসীর পক্ষে এটা অপমানজনক। তাই রাজস্থানের রাজ্যপালের অতি সত্ত্বর বিধানসভার অধিবেশন আয়োজন করা উচিৎ। এর ফলে সত্যি বিষয়টি সামনে আসবে।”

এখানে আপনার মতামত জানান