“বাংলা দখল করার নাম করে বাংলাকে অত্যন্ত সঙ্কটে ফেলে দিয়েছে বিজেপি।”- মুখ্যমন্ত্রী আক্রমণ করলেন বিজেপিকে

“বাংলা দখল করার নাম করে বাংলাকে অত্যন্ত সঙ্কটে ফেলে দিয়েছে বিজেপি।”- মুখ্যমন্ত্রী আক্রমণ করলেন বিজেপিকে

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা ভারতজুড়ে মৃত্যুর ভয়াল তান্ডব চালিয়ে যাচ্ছে করোনা ভাইরাস। ভারতে কোভ্যাক্সিন এবং কোভিশিল্ড টীকা দেওয়া চালু হলেও টীকা নিয়েও আক্রান্ত হয়েছেন অনেকেই। বাংলায় ভ্যাকসিনের পর্যাপ্ত জোগাড় না থাকায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারবার বিদ্ধ করেছেন প্রধানমন্ত্রী কে। পশ্চিমবঙ্গের বুকে মৃত্যু মিছিল জারি রয়েছে এই ভাইরাসের প্রভাবে। ‌ এখনো পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লক্ষ ৯০৪ জন।

মৃত্যু ঘটেছে ১০ হাজার ৭৬৬ জনের। সুস্থ্য হয়েছেন ৬ লক্ষ ২১ হাজার ৩৪০ জন। বেশকিছু হাসপাতালে অক্সিজেন এর সংকট দেখা দিয়েছে। ‌ তার উপর পশ্চিমবঙ্গে একুশে নির্বাচনে যথেষ্ট পরিমাণে জনসভা এবং রোড শো’র দরুণ ব্যাপকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। নির্বাচন কমিশন কড়া নির্দেশ দিয়েছে যে আর বাংলার মাটিতে কোন বড় জনসভা অথবা র‌্যালি করতে পারবে না রাজনৈতিক সংগঠন গুলি।

আরও পড়ুন-“তাড়াতাড়ি ব্যবস্থা নিন”- কেন্দ্রের কাছে কাতর আবেদন অরবিন্দ কেজরিওয়ালের

এর পরেই তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর জনসভা গুলি বাতিল করে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন,”কেন্দ্রীয় সরকারের এটা ব্যর্থতা। বিজেপি সরকারের একটাই উদ্দেশ্য যেকোনো মূল্যে বাংলাকে দখল করতে হবে। ‌বাংলার ক্ষমতা যেমন করেই হোক দখল করতে হবে। বাংলাকে দখল করার নাম করে বিজেপি বাংলাকে কোভিডের সঙ্কটে ফেলে দিয়েছে। ফ্রি ভ্যাকসিনের প্রায় ৬০% পেয়েছে গুজরাট। আর আমরা পেয়েছি মাত্র ১০% থেকে ১৫%।

বাজারে অক্সিজেন নেই, পর্যাপ্ত ওষুধ নেই। ইন্ডাস্ট্রিয়াল অক্সিজেন আমরা নিজেরাই নিয়ে নিয়েছি। আমাদের হাতে এখন ২০ হাজার সিলিন্ডার রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার বাংলাকে ভাতে মারতে চায়। বাংলা থেকে অক্সিজেন নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার বাইরের রাজ্যে পাঠিয়ে দিচ্ছে। মানুষের জন্য ২০ হাজার কোটি টাকার খরচ করতে পারছে না কেন্দ্রীয় সরকার। এদিকে দেশে ভ্যাকসিন নেই, আবার ৬৫% ভ্যাকসিন বিদেশে পাঠিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।”