নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“বিজেপি তাদের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতিকেই ধরে রাখতে পারল না।”- রাজ্য বিজেপিকে কটাক্ষ কুণাল ঘোষের

নিজস্ব প্রতিবেদন: গতকাল বিজেপি ছেড়ে আবার তৃণমূলে ফিরেছেন মুকুল রায়। জল্পনা চলছিলো অনেকদিন থেকেই। গত ২০১৭ তে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে নাম লিখিয়েছিলেন মুকুল রায় । কিন্তু তাঁকে বিজেপিতে কখনোই অতি সক্রিয় ভাবে দেখা যায়নি।

এছাড়াও একুশের ভোট প্রচারেও তাঁর উপস্থিতি ততটা সক্রিয়ভাবে দেখা যায়নি। কয়েকদিন আগেই তাঁর অসুস্থ স্ত্রীকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় হাসপাতালে দেখতে গিয়েছিলেন। তাঁর পর থেকেই তৃণমূলে তাঁর ফেরার সম্ভাবনা জোরদার হয়েছিলো। মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু রায় কয়েকদিন আগেই বিজেপিকে আত্মসমালোচনার পাঠ দিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন-‘গোয়ালের গরু দড়ি ছিঁড়ে পালিয়েছিল, খুঁটিতে বাঁধা হলো’ – মুকুল প্রত্যাবর্তনে অনুব্রত

এছাড়াও অনেক আগে থেকেই মুকুল রায়ের বেসুরো মনোভাব নজর এড়ায়নি কারোর‌ই। অবশেষে সমস্ত জল্পনা সত্যি করে গতকাল তৃণমূলে ফিরেছেন মুকুল রায়। ছেড়ে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা। রাজ্য পুলিশের নিরাপত্তা পেয়েছেন তিনি।

তৃণমূলে মুকুল রায়ের প্রত্যাবর্তনের পরেই তাঁকে একহাত নিয়েছেন বিজেপির বিভিন্ন নেতারা। এদিকে তৃণমূলের প্রাক্তন মুখপাত্র কুনাল ঘোষ বলেছেন ,”মুকুল রায় এবং শুভ্রাংশু রায় জানিয়েছেন হার মানতে না পেরে বিজেপি বাংলার বিরুদ্ধে গভীর চক্রান্ত শুরু করেছে। সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা বৃদ্ধি করার চক্রান্ত করছে ওরা। সেই পাপের ভাগীদার তাঁরা হতে চান না বলেই বিজেপির সাথে সম্পর্কচ্ছেদ করেছেন।

আরও পড়ুন-“মুকুলের শরীরটা খারাপ হয়ে যাচ্ছিলো। ও শান্তি পেলো।”- বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বিজেপি তাদের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি কে ধরে রাখতে পারল না। উনি ওখানে থাকতে পারেননি। এবার মুকুল রায়কে আমাদের দল কি কাজে লাগাবে সেই সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণরূপে নির্ভর করছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপরে ।”

Related Articles

Back to top button