“আমার বিরুদ্ধে প্রার্থী ছিলেন বেগম খালেদা জিয়া”- আবার মমতাকে আক্রমণ শুভেন্দুর

“আমার বিরুদ্ধে প্রার্থী ছিলেন বেগম খালেদা জিয়া”- আবার মমতাকে আক্রমণ শুভেন্দুর

নিজস্ব প্রতিবেদন: এবারের ভোটে সকলেরই পাখির চোখ ছিলো নন্দীগ্রামে। তার কারণ নন্দীগ্রামে এবারে মুখোমুখি হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে দুই হেভিওয়েট মন্ত্রীর। তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাঁড়িয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিজেপি থেকে দাঁড়িয়েছিলেন একদা তৃণমূলের অত্যন্ত বিশ্বস্ত সেকেন্ড ইন কমান্ড শুভেন্দু অধিকারী । দোর্দণ্ড প্রতাপ এই দুই নেতার সম্মুখ সমরে টানটান উত্তেজনা ছিলো নন্দীগ্রামে।

এদিকে শুভেন্দু অধিকারী অভিযোগ করেছিলেন যে মুখ্যমন্ত্রী তার রাজনৈতিক ক্যারিয়ারকে শেষ করার জন্যই নন্দীগ্রাম থেকে দাঁড়িয়েছেন। শুভেন্দু অধিকারী এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মধ্যে বারবার বাদানুবাদ এবং কটাক্ষের ঘনঘটায় সরগরম রাজনৈতিক পরিস্থিতি। আবার জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে কটাক্ষের তীর ছুঁড়লেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি করণদিঘি থেকে বলেছেন, “নন্দীগ্রামে আমার‌ বিপক্ষে দাঁড়িয়েছেন বেগম খালেদা জিয়া।

আরও পড়ুন –“শীতলকুচিতে চারজনকে না মেরে ৮ জনকে মারা উচিৎ ছিলো”- বিস্ফোরক মন্তব্য রাহুল সিনহা।

উনি বলেছেন উনি নাকি গোলকিপার। সমস্ত গোল রক্ষা করবেন। কিন্তু নন্দীগ্রামে খেলা শুরুর অনেকক্ষণ পরে গোলকিপার মাঠে নেমেছেন। উনি ততক্ষণ মাথায় হিজাব পরে বয়ালের বুথে বসেছিলেন। দশ বছরে উনি মানুষের জন্য কি করেছেন তা বোঝাই যাচ্ছে।” আজ করণদিঘীতে বিজেপি প্রার্থী সুভাষ সিং এর হয়ে প্রচার করেছেন শুভেন্দু অধিকারী।