ছেলের বদলে মিঠুনের স্বপ্ন পূরণ করল বৌমা মাদালসা ! অনুপমা সিরিয়াল থেকে বিশাল অংকের পারিশ্রমিক নেন মিঠুনের পুত্রবধূ!

ছেলের বদলে মিঠুনের স্বপ্ন পূরণ করল বৌমা মাদালসা ! অনুপমা সিরিয়াল থেকে বিশাল অংকের পারিশ্রমিক নেন মিঠুনের পুত্রবধূ!

নিজস্ব প্রতিবেদন: বলিউড থেকে শুরু করে টলিউড সব জায়গাতেই সমান জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন মিঠুন চক্রবর্তী।তার অভিনয় থেকে শুরু করে নাচের পারদর্শিতা সবকিছুই দর্শকদের কাছে অত্যন্ত আকর্ষণীয় বিষয়। রীতিমতো কঠিন লড়াই করে বলিউডে নিজের জায়গা তৈরি করেছিলেন মিঠুন।কিন্তু সত্যি বলতে গেলে মিঠুনের ছেলে এখনো পর্যন্ত অভিনয় জগতে নিজের বিশেষ কোনো জায়গা তৈরি করতে পারেননি।

বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও তা প্রায়ই অসফল থেকেছে। এমতাবস্থায় অভিনয় ক্ষেত্রে নতুন জায়গা তৈরি করে নিলেন মিঠুনের পুত্রবধূ তথা জনপ্রিয় অভিনেত্রী মাদালসা।প্রসঙ্গত মিঠুনের এই পুত্রবধূ অভিনয় এর সাথে নাচেও বেশ পারদর্শী। মাঝে মাঝেই সোশ্যাল মিডিয়াতে তার বিভিন্ন নাচের ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়।সম্প্রতি দিন কয়েক আগেই তার একটি নাচের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলে দিয়েছিল দর্শক মহলে।

তবে সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় কি জানেন? এখনো পর্যন্ত অভিনয় জগতে বিশেষ সফলতা না পাওয়ায় ছেলের জন্য মিঠুনের স্বপ্ন অধরাই রয়ে গিয়েছে। কিন্তু সম্প্রতি এই স্বপ্ন পূরণ করতে চলেছেন তার পুত্রবধু মাদালসা। টিআরপি রেটিংয়ের শীর্ষস্থানে থাকা অনুপমা ধারাবাহিকে কাব্যার চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায় মিঠুনের পুত্রবধূকে। নিজের অভিনয় দক্ষতার মাধ্যমে খুব সহজেই দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন –পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন মধুবনী গোস্বামী;সোশ্যাল মিডিয়ায় স্ত্রী সহ সন্তানের ছবি ভাগ করে নিলেন স্বামী রাজা!

এই জনপ্রিয় ধারাবাহিকটির মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন রূপালী গাঙ্গুলি এবং সুধাংশু পান্ডে।এই ধারাবাহিকে এক বিবাহিত মহিলার সাথে তার স্বামী এবং সন্তানদের ব্যবহার ও ভাবনা তুলে ধরা হয়েছে।কিভাবে একজন মহিলা নিজের পরিচয় প্রতিষ্ঠা করেন তা বেশ আকর্ষিত করেছে ধারাবাহিক প্রেমীদের।যাই হোক, এই জনপ্রিয় ধারাবাহিকে কাব্যা চরিত্রটিতে অভিনয় এর জন্য প্রত্যেক পর্বে ৩০ হাজার টাকা নেন মিঠুনের পুত্রবধূ।

ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্র রূপালী গাঙ্গুলী অর্থাৎ অনুপমা প্রত্যেকটি পর্বের জন্য ৫০ হাজার টাকা পারিশ্রমিক পান।অন্যান্য তারকাদের মধ্যে অনুপমার স্বামীর চরিত্রে অভিনয় করা সুধাংশু পান্ডে প্রত্যেক পর্বের জন্য ৫০ হাজার টাকা চার্জ করেন। সেই তুলনায় মাদালসার পারিশ্রমিক কম হলেও এটি যে তাকে অভিনয় জগতের শীর্ষস্থানে ধীরে ধীরে তুলে দেবে তাতে সন্দেহ নেই।