নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“ত্রিপুরায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে”- বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করল তৃণমূল।

নিজস্ব প্রতিবেদন: তৃণমূলের সর্বভারতীয় সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয়ে গত সোমবার হামলার অভিযোগ উঠেছে। ত্রিপুরার আগরতলায় অভিষেকের গাড়ি ঘিরে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখিয়েছে বিজেপির কর্মী সমর্থকরা। অভিষেককে দেখানো হয়েছে কালো পতাকা এবং তাঁকে গো ব্যাক‌ স্লোগান‌ও দেওয়া হয়েছে। একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে অভিষেকের গাড়িতে লাঠি দিয়ে আঘাত করছে বিজেপি কর্মীরা।

অভিষেকের উপর হামলার ঘটনায় টুইট করেছেন রাজ্য তৃণমূল যুব সভানেত্রী সায়নী ঘোষ। তিনি টুইট করে লিখেছেন,”বিপ্লব দেবের অতিথি দেব ভব’র চমৎকার উদাহরণ হল ত্রিপুরায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয় পৌঁছাতেই তার উপর হামলা করা। তিনি মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে আসীন হয়েছেন, কিন্তু চারিত্রিকভাবে পরাজিত রয়েছেন। ‌ এই ঘটনায় প্রমাণ পাওয়া গেল ত্রিপুরায় বিজেপি ভয় আর নিরাপত্তার অভাবের মধ্যে রয়েছে।”

আরও পড়ুন-তৃণমূল বিধায়ককে জুতো পরিয়ে দিলো দলীয় কর্মীরা। রাজ্য রাজনীতিতে তুমুল বিতর্ক

এদিকে রাজ্য তৃণমূল কংগ্রেস অভিযোগ তুলেছে যে সর্বভারতীয় সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের টুইট করা ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, তার গাড়িতে লাঠি দিয়ে আঘাত করছে বিজেপির ঝান্ডাধারী বেশ কয়েকজন। ত্রিপুরার তৃণমূল নেতা প্রকাশ চন্দ্র দাশ বলেছেন,”রাস্তার দুধারে বিজেপি কর্মীরা দাঁড়িয়েছিল। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয় সেখানে পৌছতেই তাঁর গাড়িতে হঠাৎই আঘাত করতে শুরু করে।

আরও পড়ুন-“বাড়িতে বসে থাকার জন্য আপনাদের ভোটে জেতানো হয়নি”- দলীয় বিধায়কদের হুঁশিয়ারি দিলেন অনুব্রত মণ্ডল

ঘটনার ভিডিও থেকে পরিষ্কার, তাদের উদ্দেশ্য ছিলো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে খুন করা।” এই মর্মে প্রকাশ চন্দ্র দাশ ত্রিপুরার ডিজিপিকে একটি চিঠি লিখে বিস্তারিত অভিযোগ করেছেন। এদিকে রাজ্য বিজেপি দাবি করেছে যে, “এই ঘটনার সাথে যুক্ত রয়েছে তৃণমূলের দাঙ্গাবাজ কর্মীরাই যুক্ত।”

Related Articles

Back to top button