নিউজ

ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো আসাম। আসামের মুখ্যমন্ত্রী কে ফোন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

নিজস্ব প্রতিবেদন: একদিকে সারাদেশ জুড়ে প্রবল সন্ত্রাস চালাচ্ছে করোনা। বহু মানুষ মৃত্যুর মুখে পতিত হচ্ছেন। দিন দিন লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। চারদিকে ধ্বনিত হচ্ছে অসহায় মানুষের আর্তনাদ। এর মধ্যেই বেঁচে থাকার প্রাণপণ চেষ্টা চালাচ্ছেন মানুষজন। ‌ দেখা গিয়েছে অক্সিজেনের অভাব। শুধুমাত্র অক্সিজেনের অভাবে অকালে জীবনদীপ নির্বাপিত হচ্ছে অনেক করোনা রোগীর। শ্মশানে দাহ করার জায়গাটুকু পাওয়া যাচ্ছে না। রীতিমতো ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে ভারতের বুকে। চারদিকে মৃত্যুর বিভীষিকা বিরাজ করছে। মানুষ সর্বদা মৃত্যু ভয়ে তটস্থ হয়ে রয়েছেন।

এরই মধ্যে দেখা গিয়েছে আর একটি বিপর্যয়। ‌ সাতসকালেই ভূকম্পন অনুভূত হয়েছে উত্তরবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায়। ‌ মুর্শিদাবাদ, কোচবিহার এবং জলপাইগুড়িতে আজ সকালেই অনুভূত হয়েছে এই কম্পন। এছাড়াও আজ প্রবল কম্পন অনুভূত হয়েছে আসামেও। আসামের ভূমিকম্পের তীব্রতা এসে পৌঁছেছে কলকাতা সহ সমগ্র দক্ষিণবঙ্গেও।

আরও পড়ুন-“অক্সিজেনের যথেষ্ট যোগান রয়েছে।”- দাবি করেছিলেন যোগী আদিত্যনাথ। আগ্রার হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু হল ৮ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর।

আসামের ভূমিকম্পের পর এই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোন‌ওয়ালকে ফোন করে পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। আজ সকালে আসামের তেজপুরে প্রবল কম্পন অনুভূত হয়। জানা গেছে এই ভূমিকম্পের উপকেন্দ্র ছিল তেজপুর থেকে ৪৩ কিলোমিটার পশ্চিম দিকে। পরপর দুটি কম্পন অনুভূত হয়।

প্রথম কম্পনটি অনুভূত হয়েছে সকাল ৭:৫১ নাগাদ। এবং দ্বিতীয় কম্পনটি অনুভূত হয় ৭:৫৫ মিনিটে। প্রথম কম্পনটির রিখটার স্কেলে মাত্রা ছিল ৬.৪ এবং পরপর দুটি কম্পনের রিখটার স্কেলে মাত্রা ছিলো ৪.৩ এবং ৪.৪ । ভূমিকম্পের উৎসস্থল সম্পর্কে এখনো বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। তবে এই ভয়াবহ আবহে ভূমি কম্পন অনুভূত হওয়ায় প্রবল আতঙ্ক ছড়িয়েছে আসামবাসীর মধ্যে।

Related Articles

Back to top button