ঘূর্ণাবর্তের ফলে বাংলা মুখোমুখি হতে চলেছে প্রবল ঝড় বৃষ্টির। পূর্বাভাস আবহাওয়া দপ্তরের

ঘূর্ণাবর্তের ফলে বাংলা মুখোমুখি হতে চলেছে প্রবল ঝড় বৃষ্টির। পূর্বাভাস আবহাওয়া দপ্তরের

নিজস্ব প্রতিবেদন: গরমের তীব্র দাবদাহে এখনও সেরকম ভাবে আছড়ে পড়েনি বাংলার বুকে। তবে যথেষ্ট কাহিল হচ্ছেন মানুষজন। রোদের কড়া রক্তচক্ষুতে রীতিমতো হাঁসফাঁস করছেন অনেকেই। ‌ বৈশাখ মাস পড়তে চলেছে খুব শীঘ্রই । এই আবহেই একটি ঘূর্ণাবর্তের দরুন বাংলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

আজ বুধবার কলকাতা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে চলেছে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকতে চলেছে ২৮ ডিগ্রী সেলসিয়াসের কাছাকাছি। আজ রাতের দিকে শহরের আকাশে মেঘের ঘনঘটা থাকতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।মধ্যপ্রদেশের সৃষ্ট ঘূর্ণাবর্তের জন্য গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে বেশ কয়েক দিন বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

আরও পড়ুন-বাড়িতেই দারুণ সহজ এই পদ্ধতিতে মাথায় এই ঘরোয়া জিনিস লাগালে আর জীবনে ঝরবেনা চুল, চুল হবে ঘন!

এছাড়াও আগামী শনিবার বাংলার উত্তরে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি দেখা দিতে পারে। আগামী শুক্রবার থেকেই যথেষ্ট ঝড়ো হাওয়ার মুখোমুখি হতে পারে বাংলা।নববর্ষের প্রারম্ভেই বৃষ্টি হতে পারে উত্তরবঙ্গের কোচবিহার থেকে শুরু করে দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার এবং কালিম্পংয়ে।দক্ষিণবঙ্গের মাটিতেও বজ্রবিদ্যুৎ সহ শিলা বৃষ্টি হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। সেই সাথে ঝোড়ো হাওয়া ব‌ইতে পারে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে। দক্ষিণবঙ্গের বীরভূম, মুর্শিদাবাদ এবং পশ্চিম ও পূর্ব বর্ধমানে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড় বৃষ্টি হতে পারে বলে জানা গিয়েছে।