নিউজপলিটিক্স

বাইকে চেপে ভোট দিতে র‌ওনা হলেন অনুব্রত মন্ডল

নিজস্ব প্রতিবেদন: আজ রাজ্যের ৩৫ টি আসনে শেষ দফা, অর্থাৎ অষ্টম দফার ভোট সম্পন্ন হচ্ছে। বীরভূমের মাটিতেও আজ ভোটগ্রহণ চলছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে নজরবন্দি হয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। ‌ অনুব্রত মণ্ডলের নজরদারিতে মোতায়েন থাকবেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জ‌ওয়ানরা। গত ২৭ শে এপ্রিল বিকাল ৫ টা থেকে আগামী ৩০ শে এপ্রিল সকাল ৭ টা পর্যন্ত নিজের বাড়িতেই নজরবন্দী থাকবেন অনুব্রত মণ্ডল।

এই শেষ দফার ভোটে যাতে কোনোরকম গন্ডগোল না হয়, তার জন্য অনুব্রত মন্ডলকে নজরবন্দি করা অত্যধিক শ্রেয় বলে মনে করছে নির্বাচন কমিশন। কিন্তু গতকাল কেন্দ্রীয় বাহিনীর সামনে দিয়ে গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। অনেক চেষ্টা করেও বহুক্ষণ তার নাগাল পায়নি কেন্দ্রীয় বাহিনী।অনুব্রত মণ্ডল বলেছেন,”আমি কাল তারাপীঠে পূজো দিতে গিয়েছিলাম। আমি বেশ কয়েকটা জায়গায় ঘুরেছি। আমার কর্মীদের বলেছি যে সুস্থ্য এবং শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট হোক।

আরও পড়ুন-“ইভিএম মেশিনের পাশে দাঁড়িয়ে নির্দিষ্ট বোতাম দেখিয়ে দিচ্ছেন তৃণমূল নেতা।”- বিস্ফোরক অভিযোগ করল বিজেপি।

কোন রকম ঝামেলা অশান্তি যেন না হয়। ইলেকশন কমিশনের পুলিশ সেখান থেকে আমাদের ১০ থেকে ২০ জন কর্মীকে ডেকেছে। এটা কি জন্য ডাকা হয়েছে? বিজেপির কথাতে কেন ডাকা হচ্ছে? আর আমরা একশোটা দরখাস্ত দিয়েও সেগুলো গ্রাহ্য করছে না কমিশন। তাদের অন্যায় কি ? আমরা যাদের সম্পর্কে অভিযোগ করছি তাদের কিছু বলছে না ইলেকশন কমিশনের পুলিশ !”

আজ অনুব্রত মণ্ডল বাইকে করে ভোট দিতে গিয়েছেন। বুথের রাস্তা যথেষ্ট সঙ্কীর্ণ হ‌ওয়ার দরুন মোটর বাইকে করেই মেয়ের সাথে ভোট দিতে গিয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। ভোট শুরু হ‌ওয়ার পাঁচ ঘন্টা পর ভোট দিতে বেরিয়েছেন অনুব্রত। তৃণমূলের জেলা সভাপতি ভাগবতপুর প্রাইমারি স্কুলের বুথে ভোট দেবেন এবং তার পরেই পাশেই অবস্থিত তৃণমূলের জেলা কার্যালয়ে তিনি বসবেন এবং সেখান থেকেই ভোটের কার্যাবলী পর্যবেক্ষন করবেন। তিনি বলেছেন যে, বীরভূমের মাটিতে আজকে শান্তিপূর্ণ ভোট সম্পন্ন হবে।

Related Articles

Back to top button