নিউজপলিটিক্স

মন্ত্রীমন্ডল সাজাতে চলেছেন অমিত শাহ । ওদিকে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী মুখ্যমন্ত্রী।

নিজস্ব প্রতিবেদন: একুশের ভোটের শেষ দফা সমাপ্ত হয়েছে গত ২৯ শে এপ্রিল। আগামীকাল সারা রাজ্যবাসী জানতে পারবে কে হতে চলেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ! এদিকে ভোটের প্রথম থেকেই যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী হয়ে আছে গেরুয়া শিবির। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বারবার বলে আসছেন যে এবারে বাংলায় প্রস্ফুটিত হতে চলেছে পদ্ম ফুল। কিন্তু তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মবিশ্বাসী কন্ঠে বলেছেন যে বাংলায় এবারে আবার ফুটবে জোড়া ফুল।

এবিপি এবং সিএনএক্স সমীক্ষায় দেখিয়েছে যে বাংলায় তৃণমূল পেতে পারে সর্বোচ্চ ১৮৫ টি আসন, এবং বিজেপি পেতে পারে সর্বোচ্চ ১২৫ টি আসন। সে ক্ষেত্রে বাম সংযুক্ত মোর্চা পেতে পারে ১৬ টি সর্বোচ্চ আসন।এছাড়াও রিপাবলিক টিভি সমীক্ষায় জানিয়েছে যে বাংলায় তৃণমূল পেতে পারে ১২৮ থেকে ১৪৮ টি আসন, বিজেপি পেতে পারে ১৩৮ থেকে ১৪৮ টি আসন। বাম সংযুক্ত মোর্চা পেতে পারে সর্বোচ্চ ২১ টি আসন। এছাড়াও টাইমস নাও সমীক্ষা করে বলেছে , একুশের ভোটে তৃণমূলের দখলে যেতে পারে সর্বোচ্চ ১৫৮ টি আসন, বিজেপির দখলে যেতে পারে সর্বোচ্চ ১১৫ টি আসন।

আরও পড়ুন-৬ ঘন্টা ধরে ফ্ল্যাটেই বন্দী করোনা রোগীর মৃতদেহ। দরজা ভেঙে উদ্ধার করলো পুলিশ।

বাম সংযুক্ত মোর্চার দখলে যেতে পারে সর্বোচ্চ ১৯ টি আসন। এনডিটিভি সমীক্ষায় জানিয়েছে যে এই ভোটে তৃণমূলের দখলে যেতে পারে সর্বোচ্চ ১৭৬ টি আসন, বিজেপির দখলে যেতে পারে সর্বোচ্চ ১১৫ টি আসন এবং বাম সংযুক্ত মোর্চার দখলে যেতে পারে সর্বোচ্চ ১৫ টি আসন। এই সমীক্ষা প্রকাশিত হতে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পেয়েছে তৃণমূলের। অপরদিকে বিজেপি বলেছে এই সমীক্ষা সম্পূর্ণ ভ্রান্ত।

এদিকে বাংলায় ক্ষমতায় আসার আগেই আত্মবিশ্বাসের বলে বলীয়ান হয়ে মন্ত্রীমন্ডল গঠন করার কাজ শুরু করে দিয়েছেন অমিত শাহ । জানা গিয়েছে বিজেপি ক্ষমতায় এলে বাংলায় মুখ্যমন্ত্রী পদে বসতে পারেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এছাড়াও শুভেন্দু অধিকারী, রাজীব সিনহা, লকেট চট্টোপাধ্যায় কেও বিভিন্ন পদ দেওয়া হবে । এদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গতকাল একটি ভার্চুয়াল মিটিংয়ে তার দলীয় কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন গণনা কেন্দ্র ছেড়ে কেউ যেন চলে না যান। তিনি বলেছেন তৃতীয়বারের জন্য বাংলায় ক্ষমতায় আসবে তৃণমূল‌ই।

Related Articles

Back to top button