নিউজআন্তর্জাতিকদেশ

তালিবানের বিরুদ্ধে উঠলো ইউক্রেনের বিমান হাইজ্যাকের অভিযোগ।

নিজস্ব প্রতিবেদন: আফগানিস্তানের মাটিতে আটক নাগরিকদের উদ্ধার করতে যাওয়া ইউক্রেনের একটি বিমানকে কাবুলে হাইজ্যাক করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন ইউক্রেন সরকারের এক মন্ত্রী। বর্তমানে আফগানিস্তানের মাটিতে এই যথেষ্ট চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। আফগানিস্তানের মাটি ছেড়ে নিজেদের দেশে ফিরে যাচ্ছেন কর্মসূত্রে আফগানিস্থানে কাজ করা বিদেশি নাগরিকরা।

বিশেষ করে আমেরিকার বহু নাগরিক এখন আফগানিস্তানের মাটিতে কর্মসূত্রে ছিলেন তাদেরকে আমেরিকা সরকার ফিরিয়ে নিয়ে গিয়েছে। তবে কাবুল বিমানবন্দরে এখনো মোতায়েন রয়েছে আমেরিকান সেনা এবং ব্রিটিশ সেনা । ভারত সরকার বেশিরভাগ ভারতীয়দের বিমান বাহিনীর বিশেষ প্লেনে নিয়ে চলে এসেছে বলে জানিয়েছে।

আরও পড়ুন-আফগানিস্তানে তালিবানি সন্ত্রাসের দরুন আফগান পাত্রের সাথে বিয়ে ভেঙে দিলেন আরশি।

এই আবহের মধ্যে ইউক্রেন সরকারের মন্ত্রী দাবি করেছেন যে তাদের বিমান হাইজ্যাক করেছে তালিবান। তবে এই প্রসঙ্গে ইউক্রেন সরকার জানিয়েছে যে ইউক্রেন নাগরিকদের উদ্ধার করার জন্য পাঠানো বিমানের হাইজ্যাকের কোনো খবর মেলেনি ।

ইউক্রেনের উপ বিদেশমন্ত্রীর দাবি, “গত রবিবার কাবুলে ইউক্রেনবাসীদের নিয়ে আসার জন্য যে বিমান পৌঁছেছিল সেই বিমানটিকে হাইজ্যাক করে অপহরণকারীরা ইরানে নিয়ে চলে গিয়েছে। ইউক্রেনের নাগরিকদের উদ্ধার করতে গিয়ে বারবার বাধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে ইউক্রেন প্রশাসনকে। ইউক্রেনের নাগরিকদের এয়ারপোর্ট মুখো হতে দেওয়া হচ্ছে না।“তবে এই প্রসঙ্গে উল্টো অবস্থান দিয়েছেন ইউক্রেনের বিদেশমন্ত্রকের সভাপতি।

আরও পড়ুন-“তালিবানদের মদত দিয়েছিলো আইএস‌আই।”- মতামত জ্ঞাপন করলো আমেরিকান কংগ্রেস।

তিনি বলেছেন যে, “এখনো পর্যন্ত ইউক্রেনের কোন বিমান হাইজ্যাক করার খবর পাওয়া যায়নি সম্পূর্ণ ভ্রান্ত তথ্য পরিবেশন করা হচ্ছে।”জানা গিয়েছে আফগানিস্থানে বর্তমানে ১০০ জনের‌ই বেশী ইউক্রেনের নাগরিক রয়েছেন যারা কর্মসূত্রে ইউক্রেন গিয়েছিলেন। ইউক্রেন সরকার ওই নাগরিকদের উদ্ধারের প্রবল চেষ্টা চালাচ্ছে।

Related Articles

Back to top button