পশ্চিমবঙ্গের বুকে বাতিল হল অমিত শাহের সমস্ত জনসভা

পশ্চিমবঙ্গের বুকে বাতিল হল অমিত শাহের সমস্ত জনসভা

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনার ভয়াবহতা নাড়িয়ে দিয়েছে সারা দেশকে। এদিকে সারাদেশে অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দেওয়ায় চরম সমস্যায় পড়েছেন আক্রান্তরা। দেশের বেসরকারি এবং সরকারি হাসপাতালগুলোতে কমে এসেছে অক্সিজেনের পরিমাণ। পর্যাপ্ত অক্সিজেন না পেয়ে মৃত্যু ঘটেছে অনেক করোনা আক্রান্তের । দেশের এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দের নিয়ে বৈঠকে বসেছেন প্রধানমন্ত্রী । কিন্তু এই বৈঠকে যোগদান করেন নি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

অক্সিজেন প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলির কর্ণধারেরাও এই বৈঠকে সরাসরি অংশগ্রহণ করেছেন। সারা দেশের এই সঙ্কটজনক পরিস্থিতিতে কিভাবে বিপদের মোকাবিলা করা যাবে এবং অক্সিজেন কিভাবে বন্টন করা যাবে তা নিয়েই এই বৈঠকে আলোচন করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। নির্বাচন কমিশন নির্দেশ জারি করেছে যে বাংলায় আর কোন বড় রাজনৈতিক জনসমাবেশ এবং সাইকেল, মোটর বাইক মিছিল করতে পারবে না রাজনৈতিক দলগুলি।

আরও পড়ুন-“আগে আমেরিকার সকলকে টীকা দিয়ে তবেই ভারতে কাঁচামাল রপ্তানি হবে।”- ঘোষণা আমেরিকার রাষ্ট্রপতির

এরপরই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন যে তিনি ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে জনসভা করবেন, একই ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবার জানা গিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ আগামী দুই দফা ভোটের আগে কোনোরকম জনসভা করবেন না বাংলায়। এবারে বিজেপির অন্যতম স্টার প্রচারক ছিলেন অমিত শাহ। গত ২২ শে এপ্রিল থেকেই আর জনসভা করছেন না অমিত শাহ।

বিজেপি জানিয়েছে যে, ভার্চুয়াল বক্তৃতা শুনতে যথেষ্ট ভীড় হবে ষা, ৫০০ জনকে নির্দিষ্ট দূরত্বে বসানো যাবে ভার্চুয়াল বক্তৃতা শোনার জন্য। কিন্তু অমিত শাহের জনসভা হলে মানুষের ভীড় সামাল দেওয়া কঠিন হবে। তাই অমিত শাহের আর কোনো জনসভা বা র‌্যালি হবে না বাংলার মাটিতে এমনটাই জানিয়েছে বিজেপি। তবে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতেও সভা করতে পারেন অমিত শাহ।