কেন্দ্রের শোকজের জবাব দিলেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।

কেন্দ্রের শোকজের জবাব দিলেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।

নিজস্ব প্রতিবেদন: গত মে মাসের ২৭ তারিখে প্রধানমন্ত্রী বাংলা এবং ওড়িশার ইয়াস বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনে এসেছিলেন। কলাইকুন্ডায় মুখ্যমন্ত্রীর সাথে বৈঠক হওয়ার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রীর। কিন্তু ওই বৈঠকে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী উপস্থিত থাকার দরুন মুখ্যমন্ত্রী ওই বৈঠকে অংশগ্রহণ করেননি।

এছাড়াও তিনি ওই বৈঠকে অংশগ্রহণ না করে শুধুমাত্র বাংলায় ইয়াস এর ফলে হওয়া ক্ষয়ক্ষতির রিপোর্ট প্রধানমন্ত্রীর হাতে দিয়ে বেরিয়ে আসেন।এর সাথে যুক্তহন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। ‌ তৎকালীন রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এই বৈঠকে উপস্থিত না হয় তাঁর পদের অমর্যাদা করেছেন এবং শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন বলে অভিযোগ তোলে কেন্দ্রীয় সরকার যার দরুন তাঁকে শোকজ নোটিশ পাঠায় কেন্দ্র।

আরও পড়ুন-“একটা পরিবারের জন্য গোটা জেলা শেষ হয়ে গিয়েছে।”- পূর্ব মেদিনীপুর গিয়ে অভিষেকের আক্রমণ শুভেন্দু কে

তিন দিনের মধ্যে এই নোটিশের জবাব দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল কেন্দ্র।গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যাবেলা ই মেইল করে কেন্দ্রের শোকজের জবাব দিয়েছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।আলাপন বাবু নিজের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন, তারপরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় , তার মুখ্য উপদেষ্টা পদে নিয়োগ করেছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

আরও পড়ুন-“কে কেন দেখা করতে গিয়েছিলেন জানিনা”- হাসপাতালে মুকুলের স্ত্রীকে দিলীপ ঘোষের দেখতে যাওয়া নিয়ে মন্তব্য মুকুলের।

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের শোকজের জবাবে বলেছেন,”সকাল থেকেই মুখ্যমন্ত্রীর সাথে ক্ষয়ক্ষতির পর্যালোচনায় আমি গিয়েছিলাম ।প্রধানমন্ত্রীর সুরক্ষার খাতিরে আমাদের কপ্টার ওড়ার অনুমতি পাওয়া যায়নি । তাই আমরা কলাইকুন্ডায় প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে দেরিতে উপস্থিত হয়েছিলাম। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ দিয়েছিলেন বলে আমি বেরিয়ে এসেছিলাম। মুখ্যমন্ত্রী যেহেতু রাজ্যের সর্বময় কর্ত্রী, তাই তাঁর আদেশ পালন করা আমার কর্তব্য।”