নিউজপলিটিক্স

আবার ত্রিপুরায় আক্রান্ত তৃণমূল। দোলা সেন, অপরুপা পোদ্দারের গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ।

নিজস্ব প্রতিবেদন: একুশের ভোটে বাংলার মাটিতে ক্ষমতা দখলের পর ত্রিপুরার পাখির চোখ এবার আগামী ২০২৩ এর ত্রিপুরার বিধানসভা নির্বাচনে ত্রিপুরার ক্ষমতা দখল। বর্তমানে ত্রিপুর বিপ্লব দেবের সরকারকে পর্যুদস্ত করে ত্রিপুরার মাটিতে জোড়াফুল প্রস্ফূটিত করতে বদ্ধপরিকর তৃণমূল কংগ্রেস। গত সপ্তাহে শনিবার ত্রিপুরার মাটিতে আক্রান্ত হয়েছিলেন তৃণমূলের যুবনেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহা, জয়া দত্ত সহ তৃণমূলের বেশ কিছু কর্মী সমর্থকরা।

গত শুক্রবার আবার ত্রিপুরার মাটিতে র‌ওনা দিয়েছিলেন তৃণমূলের সাংসদ অর্পিতা ঘোষ, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, দোলা সেন এবং প্রতিমা মন্ডল, অপরূপা পোদ্দার, প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, আবু তাহের খান, দোলা সেন। দোলা সেন, কয়েকদিন আগেই কুণাল ঘোষ, ব্রাত্য বসুর সাথে গিয়েছিলেন। এই পরিস্থিতিতে তৃণমূলের এই সাংসদদের ত্রিপুরা র‌ওনা হ‌ওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

আরও পড়ুন – অজয় নদে দেখা পাওয়া গেল ব্রিটিশ আমলের বোমার। রীতিমতো চাঞ্চল্য এলাকা জুড়ে।

এদিকে ত্রিপুরার মাটিতে দফায় দফায় হামলার মুখে পড়লেন তৃণমূলের নেতা নেত্রীরা। একদিনে তিনবার আক্রমণ করা হল দোলা সেন, অপরূপা পোদ্দার দের। আগরতলায় প্রত্যাবর্তন করার সময় তৃণমূল সাংসদ দের উপর হামলা করা হয় বলে অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল নেতৃত্ব। জাতীয় সড়কে দোলা সেন, অপরূপা পোদ্দার দের লাঠি, বাঁশ নিয়ে বিজেপি কর্মীরা হামলা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

দোলা সেন অভিযোগ করেছেন যে, তৃণমূলের উপরে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা লাঠি, বাঁশ নিয়ে আক্রমণ করেছে। তৃণমূল সাংসদ দোলা সেন এর ব্যক্তিগত সেক্রেটারির মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়েছে, এবং তৃণমূলের আর এক সংসদ অপরুপা পোদ্দারের ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে মাটিতে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এমনটাই অভিযোগ করেছেন দোলা সেন। এই ঘটনায় রাজ্য রাজনীতিতে আবার উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তৃণমূল সাংসদ দোলা সেন অভিযোগ করেছেন যে পুলিশ সবকিছু দেখেও শুধুমাত্র নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছে।

Related Articles

Back to top button