নিউজপলিটিক্সরাজ্য

আবার ভাঙন বিজেপি শিবিরে। এবার দল ছাড়লেন বিজেপির রাজ্য কমিটির নেতা।

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুকুল রায়ের বিজেপিতে প্রত্যাবর্তনের পরেই তাঁর পথে পা বাড়িয়ে রয়েছেন রাজীব বন্দোপাধ্যায় সহ বিজেপির আরো নেতারা। মুকুল রায় নিজে বলেছেন যে তার সাথে বহু বিজেপি নেতারা যোগাযোগ করছেন তৃণমূলে আসবে বলে। এদিকে মুকুল রায় তৃণমূল প্রত্যাবর্তন করার পর থেকেই নির্বাচনী বিপর্যয়ের পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য নেতৃত্ব এবং কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন রাজ্যের বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। অনেকেই বলেছেন, নির্বাচনী প্রচারে হিন্দিভাষী নেতাদের আধিপত্য ভালোভাবে নেয়নি বাংলার মানুষ জন।

যার দরুণ এবার বিজেপির হারের পরেই বাংলায় বাড়ছে গেরুয়া শিবিরে ভাঙনের ঘটনা। একুশের ভোটের আগে ব্যাপকভাবে ভাঙন দেখা দিয়েছিলো তৃণমূলে। এবার ঠিক উল্টো পরিস্থিতি বিজেপিতে। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে ভীড় জমাচ্ছেন তৃণমূল নেতা কর্মীরা।

আরও পড়ুন-উচ্চপ্রাথমিকে নিয়োগ ঘিরে দুর্নীতির অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রীকে বিদ্ধ করলেন শুভেন্দু অধিকারী।

গতকাল তৃণমূলে আনুষ্ঠানিক ভাবে যোগদান করেছেন আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মা। যার দরুণ যথেষ্ট অস্বস্তিতে পড়েছে বিজেপি শিবির। গতকাল কলকাতায় তৃণমূল নেতা সুখেন্দু শেখর রায়, ব্রাত্য বসু এবং পার্থ চট্টোপাধ্যায় সহ তৃণমূলের বেশ কয়েকজন নেতা মন্ত্রীর উপস্থিতিতে তৃণমূলের পতাকা হাতে তুলে নিয়েছেন । তাঁর সাথে আলিপুরদুয়ারের আর‌ও বেশ কিছু বিজেপি নেতারা তৃণমূলে যোগদান করেছেন।

আর গঙ্গাপ্রসাদের তৃণমূলে যোগদানের পরেই এবার শীর্ষনেতৃত্বের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন রাজ্য বিজেপির সহ সভাপতি রাজকমল পাঠক।এবার আবার ভাঙলো বিজেপির ঘর। বিজেপি ছাড়লেন রাজ্য কমিটির নেতা। তবে তিনি কোন দলে ঢুকবেন তা এখনো পরিষ্কার হয়নি।

আরও পড়ুন-এবার ‘মিনি পাকিস্তান’ নিয়ে ফিরহাদকে কটাক্ষ করলেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি।

দার্জিলিংয়ের পর্যবেক্ষক ভাস্কর দে তাঁর পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের কাছে। তিনি বলেছেন,”কাজ করেও যোগ্য সম্মান জোটেনি। আমি বিজেপির যুব মোর্চার জেলা সভাপতি ও যুব মোর্চার রাজ্য সম্পাদক পদে ছিলাম। বিজেপির আলিপুরদুয়ারের সাধারণ সম্পাদক‌ও ছিলাম।

বর্তমানে আমি বিজেপির দার্জিলিংয়ের পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব ছেড়ে দিলাম। বিজেপির সাথে দীর্ঘ ২৩ বছরের সম্পর্কে আমি ইতি ঘটালাম।”এই ঘটনায় যথেষ্ট অস্বস্তিতে পড়েছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব।

Related Articles

Back to top button