অমিত শাহের সাথে বৈঠকের পরেই উত্তরবঙ্গ সফরে যাচ্ছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

অমিত শাহের সাথে বৈঠকের পরেই উত্তরবঙ্গ সফরে যাচ্ছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

নিজস্ব প্রতিবেদন: গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দিল্লি গিয়েছিলেন রাজ্যপাল।রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সাথে তিনি দেখা করেছেন। রাজ্যের আইন শৃঙ্খলার অবনতি হয়েছে এই মর্মে তিনি রাষ্ট্রপতিকে একটি রিপোর্ট দিয়েছেন। ‌ এরপর তিনি দেখা করেছেন কয়লা মন্ত্রী এবং সংস্কৃতি মন্ত্রীর সাথে।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাতটায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সাথে তিনি বৈঠক সম্পন্ন করেছেন। ‌ জানা গিয়েছে দীর্ঘক্ষন এই বৈঠকে রাজ্যপাল সবিস্তারে বাংলা মাটিতে হিংসাত্মক পরিস্থিতি এবং আইন শৃঙ্খলার অবনতি সম্পর্কে অমিত শাহের সাথে আলোচনা করেছেন এবং অমিত শাহের হাতে একটি রিপোর্ট তুলে দিয়েছেন। এর ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই আবার দ্বিতীয়বার অমিত শাহের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন রাজ্যপাল যার ফলে রাজ্য রাজনীতিতে জোর জল্পনার সূত্রপাত হয়েছে। সম্প্রতি রাজ্যের রাজনীতির আঙিনায় উত্তরবঙ্গ কে ঘিরে ব্যাপক বিতর্কের সূত্রপাত হয়েছে।

আরও পড়ুন-“অনেকেই পরিস্থিতির চাপে মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছেন।”- রাজীব প্রসঙ্গে মন্তব্য দিলীপ ঘোষের

সম্প্রতি আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সাংসদ জন‌বারলা উত্তরবঙ্গকে আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার জোরালো দাবি করেছেন। তিনি কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বাতিল করার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলেছেন, “চিরটা কাল দক্ষিণবঙ্গ উত্তরবঙ্গের সাথে প্রতারণা করেছে। তাই অবিলম্বে উত্তরবঙ্গ আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা হোক।”এবার এই আবহে রাজ্যপাল জানিয়েছেন যে তিনি সস্ত্রীক উত্তরবঙ্গ সফর করতে চলেছেন।

আরও পড়ুন-রাজ্যের আইন শৃঙ্খলার ব্যবস্থার বিরুদ্ধে একরাশ অভিযোগ তুলে রাজ্যপালের সাথে আবার সাক্ষাৎ করলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

তিনি জানিয়েছেন যে, দার্জিলিং সফর করে তিনি সোজা পৌঁছাবেন কার্শিয়াং। টুইট করে রাজ্যপাল জানিয়েছেন যে, আজ সোমবার‌ই তিনি উত্তরবঙ্গ সফরে র‌ওনা দিচ্ছেন। প্রসঙ্গত আজ‌ই উত্তরবঙ্গের যাওয়ার কথা। ছিলো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কিন্তু আবহাওয়া খারাপ থাকায় তিনি এই সিদ্ধান্ত বাতিল করেন।

এক‌ই দিনে রাজ্যপাল‌ও উত্তরবঙ্গের উদ্দেশ্যে র‌ওনা হ‌ওয়ায় রাজ্য রাজনীতিতে যথেষ্ট জল্পনার সূত্রপাত হয়েছে। টানা এক সপ্তাহের সফর তিনি করতে চলেছেন বলে টুইটরে জানিয়েছেন রাজ্যপাল।