টিকটক ব্যান নিয়ে মুখ খোলার পর নুসরতকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হলো ট্রোলিংয়ের ঝড়! রইলো ভিডিও

চিনের আগ্রাসী নীতির প্রতিবাদে দেশবাসী চিনা অ্যাপ সহ চিনা পণ্যদ্রব্য বর্জন করায় উদ্বুদ্ধ হয়েছেন। চিনা অ্যাপ বর্জন করতে বহু তাবড় তাবড় সেলিব্রিটি, নেতা এমনকি দেশের সীমান্ত থেকে প্র-হ-রা-র-ত জ‌ওয়ানরাও দেশবাসীকে অনুরোধ জানিয়েছেন চিনা পণ্যদ্রব্য ব্যবহার না করতে। এবার এই আবহেই চিনকে ডিজিটাল ব-য়-ক-ট করলো ভারত।

চিনের প্রায় ৫৯ টি অ্যাপ ভারত নিষিদ্ধ করেছে। এই অ্যাপগুলির মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন জনপ্রিয় অ্যাপ যেমন, টিকটক, শেয়ার ইট, ইউসি ব্রাউজার, এবং আরো অনেক জনপ্রিয় চিনা অ্যাপ। দেশের সার্বভৌমত্ব এবং মানুষের তথা দেশের গো-প-নী-য়-তা-র স্বার্থে এই চিনা অ্যাপগুলি নিষিদ্ধ করেছে ভারত সরকার।
এর পরেই বসিরহাটের সাংসদ তথা টলিউড অভিনেত্রী নুসরত জাহান টিকটক ব্যান প্রসঙ্গে সরকারি সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেন।

আরও পড়ুন –এবার মুহূর্তে চার্জ হবে ফোন থেকে ল্যাপটপ, 120 ওয়াটের দারুন চার্জার আনলো এই কোম্পানি!

তিনি বলেন যে শুধুমাত্র টিকটক ব্যান করলেই সমস্যার সমাধান হবেনা। এমনকি তিনি বলেছেন যে টিকটক থেকে যারা আয় করতেন তাঁদের আয়ের বিকল্প ব্যবস্থা করতে হবে। নাসা থেকে বিজ্ঞানী এনে নাকি টিকটকের সমতূল্য অ্যাপ বানাতে হবে। এমন হাস্যকর মন্তব্য‌ও করেন অভিনেত্রী। তবে তিনি বলেছেন যে, যদি দেশের নিরাপত্তা প্রকৃত‌ই বিঘ্নিত হয়, তাহলে তিনি এই অ্যাপ ব্যান করাকে সমর্থন করেন।

আরও পড়ুন –হু এর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিলো ট্রাম্প, সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করার মুখে আমেরিকা!

তার পরেই সারা বাংলা জুড়ে নিন্দার জড় ওঠে শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়ায় নুসরতকে নিয়ে ট্রোলিং এর ঝ-ড়। এমন‌ই একটি মিমস্ বানানো হয়েছে নুসরত এবং চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং কে নিয়ে। সেখানে বলিউডের সিনেমায় চরিত্র দের মুখের জায়গায় নুসরত এবং শি জিনপিং এর মুখ বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। অত্যন্ত হাস্যকরভাবে বানানো হয়েছে এই মিমস্।

আরও পড়ুন –সুশান্তের আ’ত্মহ’ত্যার সময়ে পড়া পোশাক নিয়ে এলো চা’ঞ্চ’ল্যকর তথ্য, তদন্তে মুম্বাই পুলিশ!

তারপরে দেখানো হয়েছে কফিন ডান্স সহযোগে টিকটককে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, সেখানে মুখ বসানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহের, এবং দেখানো হচ্ছে টিকটককে কবর দিতে যাওয়া হচ্ছে।
অভিনেত্রী নুসরতকে নিয়ে যথেষ্ট ট্রোলিং হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এখানে আপনার মতামত জানান