নিউজ

টানা ১০ দিনের লড়াইয়ের পর করোনা মুক্ত হয়ে ডাক্তারের হাত ধরে কেঁদে ফেললেন বৃদ্ধা!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-করোনা পরিস্থিতি আমাদের জীবনে নানান ধরনের পরিবর্তন নিয়ে এসেছে।প্রতিনিয়ত নিত্য নতুন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছে দেশের জনগণ।সম্প্রতি করোনাভাইরাস এর দ্বিতীয় ঢেউ দেশে ছড়িয়ে যাওয়ার পর অক্সিজেন এর পাশাপাশি বেশ কয়েকটি জায়গায় স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর ঘাটতি দেখা দিয়েছে। দিন প্রতিদিন আক্রান্ত রোগীর পাশাপাশি মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

এমতাবস্থায় এমন এক বৃদ্ধার খবর সামনে এলো যা অনেকের চোখেই জল এনে দিয়েছে। ৭৫ বছর বয়সী এই বৃদ্ধা করোনা আক্রান্ত রোগীর নাম কল্পনা চক্রবর্তী।দিন দশেক আগে করোনা সংক্রমিত হয়ে তিনি ভর্তি হয়েছিলেন কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। রোগীর শারীরিক অবস্থা তখন রীতিমতো সঙ্কটজনক। সঙ্গে প্রবল শ্বাসকষ্ট। তবুও হাল ছাড়েননি হাসপাতালে তরুণী ডাক্তার অভিশিক্তা মল্লিক।

আরও পড়ুন-দীর্ঘদিনের খেলার পর আজ প্রকাশিত হবে ফলাফল; কোন জায়গায় রয়েছে বাংলার মহা সংগ্রাম!

টানা ১০ দিনের লড়াইয়ের পর ওই বৃদ্ধাকে প্রাণে বাঁচিয়ে আনলেন তরুণী ডাক্তার। এই সময়ের মধ্যেই রোগী এবং ডাক্তারের সম্পর্কের সমীকরণ বদলে যায় তাদের মধ্যে। করোনা মুক্ত হওয়ার পর রীতিমতো হাত ধরে ওই ডাক্তার কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বৃদ্ধা।পিপিই কিট পরা অবস্থাতেই ডাক্তারের হাত ধরে কান্নায় ভেঙে পড়েন ওই বৃদ্ধা। নিজের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে ডাক্তার অভিশিক্তা মল্লিক বলেন,”নিজেদের জীবন বিপন্ন করে করোনা আক্রান্তদের সুস্থ করার লড়াই চালাচ্ছি। দিনের শেষে এটুকু ভালোবাসাই আমাদের পাওনা”।

Related Articles

Back to top button