নিউজভাইরাল & ভিডিও

অভিনেত্রী অনামিকা সাহার শারীরিক অবস্থার অবনতি, অক্সিজেন সাপোর্টএ রয়েছেন অভিনেত্রী, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-আগের বছর এই সময়ে শুরু হয়েছিল দেশজুড়ে লকডাউন । করোনা এর প্রভাবে রীতিমতো নাজেহাল অবস্থা হয়েছিল গোটা বিশ্ববাসীর । একের পর এক মৃত্যুসংবাদ আমাদেরকে ঘিরে ধরেছিল । মৃত্যুর মিছিলে ছিল অব্যাহত । কিন্তু বছরের শেষের দিকে তার প্রভাব অনেকটা কমে যেতে শুরু করে এবং মানুষ দিন গুনতে থাকে ভ্যাকসিনের আশায় ।

ভ্যাকসিন আবিষ্কার হলেও ফের আরও একবার গোটা ভারতবর্ষে তথা বিশ্বজুড়ে দেখা দিয়েছে করোনা এর প্রভাব এবং এর প্রভাব গতবারের তুলনায় আরো ব্যাপক হারে হতে পারে এমনটাই জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা । ইতিমধ্যে প্রতিদিনই প্রায় কয়েক লাখ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন । প্রাণ হারাচ্ছেন এক হাজারের বেশি মানুষ ।।

এমত অবস্থায় আবার পুনরায় লকডাউন করা উচিত নাকি বিকল্প কোন পদ্ধতি অবলম্বন করা উচিত সে বিষয়ে চিন্তিত রয়েছে ভারত সরকার।তারপর আমাদের বাংলা সহ পার্শ্ববর্তী রাজ্যগুলিতে এই মুহূর্তে যা অবস্থা তা সত্যিই শোচনীয় । বিভিন্ন প্রতিবেশী দেশ নিজেদের সাধ্যমত সাহায্য করতে এগিয়ে আসছে । একের পর এক হাসপাতালে শেষ হয়ে আসছে অক্সিজেন । এমনকি দাহ করার কাঠ জোগান দেওয়া মুশকিল হয়ে উঠছে।

আরও পড়ুন-করোনা মোকাবিলায় আজ মন্ত্রিগোষ্ঠীর সঙ্গে বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর

এবার সেই কোরোনা এর থাবা বসল বিখ্যাত টলিউড এর অভিনেত্রী র জীবনে । ঘাতক সিনেমার সেই বিন্দু মাসি কে নিশ্চয়ই আপনার মনে আছে কি ভয়ঙ্কর সাহসী পদক্ষেপের সাথে এসে চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি ।এবং সেই অভিনয় জয় করেছিল আমাদের মনকে ।এবার সে বিন্দু মাসি কে চোখ রাঙাচ্ছে করোনা । তবে তিনি ঘরে নেই বরং গিয়েছেন হাসপাতালে ।কারণ তাঁর শারীরিক অবস্থা উদ্বেগজনক । শ্বাসকষ্ট গায়ে ব্যথা তে ভোগার জন্য তিনি আর কোনরকম ঝুঁকি নেননি।

নিজের অসুস্থতার কথা তিনি নিজেই সোশ্যাল মিডিয়াতে জানিয়েছিলেন কিছুদিন আগে । তবে ফের আরও একবার জানা যাচ্ছে যে তার অবস্থার চরম অবনতি ঘটেছে । শরীরে দেখা দিয়েছে অক্সিজেন ঘাটতি প্রতি তিন ঘন্টা অন্তর অন্তর তাকে ১৫ লিটার অক্সিজেন সাপ্লাই করতে হচ্ছে । এমনকি সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে ফুসফুসেও এ । ঘটনা সামনে আশাতে চিন্তার ভাঁজ সৃষ্টি হয়েছে তার অনুরাগীদের কপালে এবং প্রত্যেকে তার দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন। আর কোন প্রিয়জনদের কে আমরা এই করোনা কবলে হারাতে চাইনা।

 

Related Articles

Back to top button