নিউজ

দেশের ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতিতে অক্সিজেন কনসেনট্রেটরের ব্যবস্থা করলেন অভিনেতা সুনীল শেট্টি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা ভারতের মধ্যে ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এখনো পর্যন্ত বহু মানুষ করোনার শিকার হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন। এর উপরে আরো ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে অক্সিজেনের অপ্রতুলতা কে কেন্দ্র করে। দেশের বিভিন্ন রাজ্যে দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের চরম সংকট। পশ্চিমবঙ্গ সহ দিল্লি, হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র এবং বিভিন্ন জায়গার হাসপাতালগুলিতে ভয়াবহ চিত্র দেখা গিয়েছে। ‌ অক্সিজেনের অভাবে তিলে তিলে মৃত্যু ঘটেছে অসহায় রোগীদের। ‌

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল হাতজোড় করে অক্সিজেনের জন্য অনুরোধ করেছেন প্রধানমন্ত্রী এবং দেশের বড় বড় শিল্পপতিদের। অক্সিজেনের জন্য রাশিয়া থেকে শুরু করে আমেরিকা ফ্রান্স, সৌদি আরব প্রভৃতি দেশগুলির থেকে যথেষ্ট সাহায্য আসতে শুরু করেছে ভারতের বুকে। আমেরিকা থেকে ভারতে আসতে চলেছে ১০০ মিলিয়ন‌ ডলারের অতি গুরুত্বপূর্ণ করোনা চিকিৎসা সামগ্রী। আমেরিকা থেকে আসছে ৪৪০ টি অক্সিজেন সিলিন্ডার, এন-৯৫ মাস্ক, র‌্যাপিড ডায়াগনোস্টিক কিট, ১০০০ অক্সিজেন সিলিন্ডার।

পোর্টেবল অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটরের এর জন্য পিএম কেয়ার্স ফান্ড থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা অনুমোদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রাশিয়া থেকে এসেছে ১৫০ টি বেডসাইড মনিটর থেকে শুরু করে ২০ টি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর এবং ৭৫ টি অত্যাধুনিক ভেন্টিলেটর। দেশের মধ্যে বেশকিছু সেলিব্রিটিরাও অসহায় করোনা রোগীদের জন্য মুক্ত হস্তে দান করেছেন। অক্ষয় কুমার করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য দান করেছেন ১ কোটি টাকা। এছাড়া অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন অসহায় আক্রান্তদের জন্য জোগাড় করে দিয়েছেন অক্সিজেন সিলিন্ডার।

আরও পড়ুন-মানবিক মুখ রিলায়েন্সের। রিলায়েন্স তৈরি করল ১০০০ বেডের বিনামূল্যে চিকিৎসার হাসপাতাল।

এছাড়াও ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর তার সমাজসেবী সংস্থাকে নিয়ে যথেষ্ট সক্রিয় ভাবে কাজ করে চলেছেন রোগীদের সেবায়। অভিনেতা সলমন খান শিবসেনার যুব সংগঠনের সাথে গাঁটছড়া বেঁধে ৫০০০ করোনা যোদ্ধাদের যেমন, নার্স, অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী, ডাক্তারদের খাবারের ব্যবস্থা করেছেন সলমন।এবার বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা সুনীল শেট্টি এগিয়ে এসেছেন করোনা আক্রান্তদের সেবায়।

জানা গিয়েছে কেভিএন ফাউন্ডেশন এর সাথে হাত মিলিয়ে সুনীল শেট্টি একটি প্রকল্প চালু করেছেন । এই প্রকল্পের নাম হল – ‘feed my city to provide oxygen concentrators’. এর মাধ্যমে তিনি বিনামূল্যে অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটরের ব্যবস্থা করেছেন দরিদ্র করোনা রোগীদের জন্য। মুম্বাই এবং ব্যাঙ্গালুরুতে বিনামূল্যে এই অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর দেওয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। এছাড়াও নিজের অনুরাগীদের দিকেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন সুনীল শেট্টি।

Related Articles

Back to top button