“সংসদের মর্যাদা বিরোধী কাজ করাই হল তৃণমূলের বহুদিনের পরম্পরা”- শান্তনু সেনকে কটাক্ষ জে পি নাড্ডার।

“সংসদের মর্যাদা বিরোধী কাজ করাই হল তৃণমূলের বহুদিনের পরম্পরা”- শান্তনু সেনকে কটাক্ষ জে পি নাড্ডার।

নিজস্ব প্রতিবেদন: গতকাল পেগাসাস ইস্যুতে যথেষ্ট চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছিলো রাজ্যসভায়। সংসদের বাদল অধিবেশন গতকাল‌ সরগরম হয়ে উঠেছিলো পেগাসাস ইস্যুকে কেন্দ্র করে। শান্তনু সেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণুর হাত থেকে কাগজপত্র ছিনিয়ে নিয়ে তা ছিঁড়ে ফেলেছেন।‌ যার দরুন আজ তার বিরুদ্ধে সরকার প্রিভিলেজ নোটিশ দাখিল করতে পারে।

এদিকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ পুরী শান্তনুকে অশ্রাব্য গালিগালাজ করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন সুখেন্দু শেখর রায়।গতকাল সুখেন্দু শেখর রায় বলেছেন, “মন্ত্রী পেগাসাস ইস্যুতে মুখ খুলতেই বোঝা গিয়েছিলো যে তিনি চরম মিথ্যা বলছেন এবং ভুল তথ্য পরিবেশন করছেন। তখনই আমাদের সাংসদ তার হাত থেকে কাগজ কেড়ে নিয়েছিলেন। যার জন্য তখনকার মতো অধিবেশন মুলতবি হয়ে গিয়েছিল।

আরও পড়ুন-এবার রাজ্যের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দুর

‌ আর অধিবেশন মুলতবি হয়ে যাওয়ার পরেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ পুরী, আমাদের সাংসদ শান্তনু সেনকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করেছেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ পুরী সভা মুলতুবি করার পর শান্তনুকে বলেন, ‘ইধার আও, হাম তুমহে সবক শিখা দেঙ্গে।’গতকাল এই ইস্যুতে তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন এর বিরুদ্ধে যথেষ্ট সরব হয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। তিনি একটি বিবৃতি জারি করে বলেছেন,”আজ সংসদে তৃণমূল সাংসদ একজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছেন তা গণতন্ত্রের মর্যাদাকে ধুলোয় মিশিয়ে দিয়েছে ।

আরও পড়ুন-“শান্তনুকে অশ্রাব্য গালিগালাজ করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ পুরী”- দাবি করলেন তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়

তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেনের এই আচরণ অত্যন্ত নিন্দনীয় বলে আমি মনে করছি। তাছাড়া তৃণমূলের বহুদিনের পরম্পরা হল সংসদের মর্যাদার বিরুদ্ধাচরণ করা। তাদের বহুদিনের সংস্কৃতি হলো নথিপত্র ছিঁড়ে দেওয়া, সংসদের কাজকর্মে বাধা প্রদান। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।”