নিউজপলিটিক্সরাজ্য

বাবুল সুপ্রিয়’র নামে নিখোঁজ পোস্টার পড়লো আসানসোলে। পাল্টা উত্তর দিলেন বাবুল

নিজস্ব প্রতিবেদন: বেশ কয়েকদিন আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নিখোঁজ হ‌ওয়ার বার্তা দিয়ে একটি পোস্টার দিয়েছিলো বিক্ষুব্ধ ছাত্র সংগঠন এর কর্মীরা। ওই সংগঠনের শীর্ষ নেতৃত্ব জানিয়েছিলেন যে করোনার এই ভয়াবহ সময়ে মানুষের পাশে এসে দাঁড়ায়নি অমিত শাহ , অথচ নির্বাচনের সময় তিনি যথেষ্ট ছুটোছুটি করেছেন। এই আবহে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র নিখোঁজ হওয়ার বার্তা দিয়ে পোস্টার পড়েছে পশ্চিম বর্ধমানের জামুরিয়াতে।জামুরিয়া বাজার এলাকায় পোস্টারে পোস্টারে ছয়লাপ হয়ে গিয়েছে।

বাবুল সুপ্রিয়র নিখোঁজ হওয়ার বার্তা দিয়ে এই পোস্টার দেওয়া হয়েছে চারদিকে। এই পোস্টারে বাবুলের ছবি দিয়ে তার নীচে হিন্দিতে লেখা রয়েছে ‘গুমসুদা কি তালাশ।’ তারপরেই লেখা রয়েছে ‘জামুড়িয়ার নাগরিকবৃন্দ।’কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতার প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে এলাকার বাসিন্দারা এই পোস্টার দিয়েছেন চারদিকে।

আরও পড়ুন-রাজ চক্রবর্তীকেই বন্ধু এবং পথপ্রদর্শক বলে মনে করেন সায়নী ঘোষ

‌ তাদের সকলের অভিযোগ, নির্বাচনের সময় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় বারবার ছুটে এসেছিলেন এলাকায়। ‌ বারবার তিনি বিভিন্ন প্রচারে উপস্থিত হয়েছিলেন, রোড শো করছিলেন। অথচ নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ হতেই রীতিমতো বেপাত্তা হয়ে গিয়েছেন তিনি। তাকে আর এলাকায় দেখতে পাচ্ছেন না মানুষজন।

এই সময়ে তার মানুষের পাশে দাঁড়ানোটা আবশ্যক ছিল। কিন্তু এই সময়ই নিখোঁজ হয়ে গিয়েছেন তিনি। তাই তার নামে জামুরিয়া বাজারে, বাসস্ট্যান্ডে নিখোঁজ হওয়ার পোস্টার লাগানো হয়েছে।এই পোস্টারের পরিপ্রেক্ষিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় বাবুল সুপ্রিয় লিখেছেন, “নোংরা রাজনীতি তৃণমূল কংগ্রেসের অন্যতম পরিচয়।

আরও পড়ুন-“কে ফলক লাগাচ্ছে, আর কে ভাঙছে সেটা কি আমার জানার কথা?”- ফলক কেলেঙ্কারি প্রসঙ্গে বললেন ফিরহাদ হাকিম

কী আমার বিরুদ্ধে দেয়ালে কি লিখলো তার জবাব আমি আমার কাজের মাধ্যমে দেবো। আমি আমার কাজের মাধ্যমে সমস্ত মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি। ‌ আসানসোলে আমাকে তৃণমূল শত চেষ্টা করলেও কিছুতেই হারাতে পারবে না। ‌ তৃণমূল যতই অপপ্রচার করুক না কেন আমার নামে কুৎসা রটাক না কেন , আমি সারা জীবন মানুষের জন্য কাজ করবো এবং মানুষের জন্য লড়াই করব।

মমতা দিদির ম্যানুফ্যাকচার করা সমস্ত বাধা বিপত্তি আমি কাটিয়ে মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়াবো।”

Related Articles

Back to top button