জামুড়িয়ায় ঐশী ঘোষের সভায় ঢুকে অশান্তির চেষ্টার অভিযোগে ধৃত ৩ বিজেপি কর্মী

জামুড়িয়ায় ঐশী ঘোষের সভায় ঢুকে অশান্তির চেষ্টার অভিযোগে ধৃত ৩ বিজেপি কর্মী

নিজস্ব প্রতিবেদন: একুশের ভোটের আগে তপ্ত হচ্ছে রাজনৈতিক পরিস্থিতি । বাংলার আকাশে বাতাসে বারুদের গন্ধ, রক্তের দাগ একুশের ভোটকে করে তুলেছে বিভীষিকাময়। নির্বাচন কমিশন যদিও তৎপর রয়েছে রাজ্যের বুকে ভোটের এই আবহে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে, কিন্তু নির্বাচন কমিশনের নির্দেশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা হিংসা হানাহানি তে মত্ত হয়ে উঠছে।

যার জন্য অকালে ঝরে যাচ্ছে বেশ কিছু তরুণ প্রাণ। কোচবিহারের শীতলকুচি তে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের গুলিতে প্রাণ দিয়েছে চার তরুণ তৃণমূল সমর্থকের। এই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা বাংলার রাজ্য রাজনীতির বুকে। এছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সংগঠনের পার্টি অফিস ভাঙচুর, কর্মী-সমর্থকদের বাড়ি ভাঙচুর, মারধরের ঘটনা ঘটছে।এদিকে আরেকটি ঘটনা ঘটেছে পশ্চিম বর্ধমানের জামুড়িয়ায়।

আরও পড়ুন-করোনার দরুন পিছোলো সিবিএস‌ই দশম শ্রেণীর পরীক্ষা। বাতিল করা হলো দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষাও

সেখানে সংযুক্ত মোর্চার সিপিএম প্রার্থী ঐশী ঘোষ জনসভা করছিলেন নিউ সাতগ্রাম কোলিয়ারির দুর্গা মন্দির এলাকায়।‌ তার জনসভার চলাকালীন হঠাৎ করে বিজেপির ঝান্ডা নিয়ে কয়েকজন কর্মী ওই সভায় ঢুকে পড়ে এবং ক্রমাগত জয় শ্রীরাম স্লোগান দিতে থাকে। কিন্তু সেদিকে লক্ষ্য না দিয়ে সভা চালিয়ে যেতে থাকেন ঐশী ঘোষ।

‌ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধি এবং পুলিশের একটি দল। সাথে সাথে আটক করা হয় তিনজন বিজেপি কর্মীকে। তবে সভাস্থলে কোন বড় ধরনের ঝামেলা অশান্তির ঘটনা ঘটেনি। উল্টে বিজেপি অভিযোগ করেছে যে, মিথ্যা অভিযোগে তাদের তিন কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।