নিউজঅফবিট

নির্মাণকার্য শেষের আগেই ভক্তদের জন্য খোলা হচ্ছে রাম মন্দির।

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিজেপি ক্ষমতায় আসার আগেই অযোধ্যা রাম মন্দির নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল অগণিত হিন্দুদের। ‌ ক্ষমতায় আসার পরেই অযোধ্যার রাম মন্দির নির্মাণের কাজ শুরু করে দিয়েছে বিজেপি। উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যার এই রাম মন্দির নির্মাণের কাজ সমাপ্ত হতে চলেছে আগামী ২০২৫ সালে এমনটাই লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। ‌ তবে অগণিত ভক্তদের ততদিন পর্যন্ত অপেক্ষা করার প্রয়োজন নেই। ‌

মন্দির কমিটি জানিয়েছে যে আগামী ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাস নাগাদ ভক্তদের জন্য এই রাম মন্দিরের দরজা খুলে দেওয়া হবে। ‌ গতবছর ৫ ই আগস্ট রাম মন্দিরের ভূমিপূজায় অংশগ্রহণ করেছিলেন এবং এই মন্দিরের নির্মাণ কার্যের সূচনা করেছিলেন। তারপরই তীব্রগতিতে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলেছে।গত ২০১৯ সালে অযোধ্যার এই বিতর্কিত জমি মামলার রায় ঘোষণা করে সুপ্রিম কোর্ট।

আরও পড়ুন-জেলায় জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ভারী বৃষ্টির সর্তকতা জারি করল আবহাওয়া দপ্তর

এই জমিতে রাম মন্দির নির্মাণের জন্য মন্দির কমিটিকে অনুমতি দেওয়া হয়। মসজিদ নির্মাণের জন্য ওয়াকফ বোর্ডকে সমপরিমাণ জমি দেওয়া হয় অন্যত্র।জানা গিয়েছে এই রাম মন্দির তিন তলা বিশিষ্ট হতে চলেছে। ‌ গত ৩০ বছর ধরে রাম মন্দিরের নকশা চূড়ান্ত করা হয়েছে।

‌ এই মন্দির তৈরি হতে চলেছে সম্পূর্ণ রাজস্থানি মার্বেল এবং পাথর দিয়ে। মন্দিরের মোট পাঁচটি মন্ডপের উপস্থিতি দেখা গিয়েছে মন্দিরের নকশাতে। বিশাল এলাকা নিয়ে এই মন্দির তৈরি হতে চলেছে। দেশজুড়ে ভক্তদের কাছ থেকে চাঁদা সংগ্রহ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন-আজ থেকে খুলতে চলেছে কালীঘাটের মন্দির।

এখনো পর্যন্ত এই রাম মন্দির নির্মাণের খরচ এর লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ হাজার কোটি টাকা । কিন্তু অনুদান এবং আরো বিভিন্ন সাহায্যে দেখা গিয়েছে যে মন্দির নির্মাণ তহবিলের ইতিমধ্যেই ৩ হাজার কোটি টাকা জমা হয়ে গিয়েছে। এই মন্দির চত্বর কে সুদৃশ্য রূপে বানানো হতে চলেছে। ‌ এছাড়াও রাম মন্দির চত্বরে থাকবে ডিজিটাল আর্কাইভ, বিভিন্ন গবেষণা কেন্দ্র এবং মিউজিয়াম।

এছাড়াও জনকল্যাণমূলক বিভিন্ন পরিষেবা পাওয়া যাবে রাম মন্দিরে। ‌

Related Articles

Back to top button